Sagar Manna

  • 0

শিলা কাকে বলে  লেখ? কয় ধরনের তাদের সম্পর্কে কি জানো তা লেখ।

3 Answers

  1. শিলা:-ভূত্বক গঠনকারী যেসব কঠিন এবং কোমল পদার্থ একাধিক খনিজের সমন্বয়ে গঠিত হয় তাকে বলা হয় শিলা।

    শিলা তিন প্রকার। যথা

    1.আগ্নেয় শিলা। আগ্নেয় শিলার উদাহরণ হল গ্রানাইট।

    2.পাললিক শিলা ।শিলার উদাহরণ হল চুনাপাথর।

    3.রূপান্তরিত শিলা।এর উদাহরণ হল মার্বেল।

    1.সৃষ্টির প্রাথমিক পর্যায়ে পৃথিবী একটি জ্বলন্ত গ্যাসীয় পিণ্ড ছিল । এই গ্যাস ধীরে ধীরে তাপ বিকিরণ করে এবং ঘনীভূত হতে থাকে এবংএই ঘনীভূত তরল থেকে ক্রমান্বয়ে জমাট বেঁধে আগ্নেয় শিলা সৃষ্টি হয়। আগ্নেয় শিলা জীবাশ্ম বিহীন ,স্তর বিহীন ,অপ্রবেশ্য এবং পৃথিবীর প্রাচীনতম শিলা।

    2.ভূপৃষ্ঠের প্রাথমিক শিলা গুলি রৌদ্র ,জলবায়ু, সমুদ্র তরঙ্গ ইত্যাদি দ্বারা বিচুর্নীভূত হয়ে সমুদ্রগর্ভে জমা হতে থাকে। ক্রমান্বয়ে চাপ তাপ এবং রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাধ্যমে এগুলি জমাটবদ্ধ পাললিক শিলা সৃষ্টি হয়। পাললিক শিলা সমুদ্রের সৃষ্টি হওয়ায় এর মধ্যে বিভিন্ন প্রাণী চাপা পড়ে যায় । এর ফলে এই শিলায় জীবাশ্ম দেখা যায় । এই শিলা প্রবেশ্য হয় এবং কোমল হয়।

    3.পাললিক এবং আগ্নেয় শিলা গুলি বিভিন্ন সময় ধরে চাপ এবং রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাধ্যমে অন্য একটি শিলাতে রূপান্তরিত হয়ে আরো কঠিন এবং কেলাসিত হলে তাকে বলা হয় রূপান্তরিত শিলা। এই শিলা কেলাসিত হয়, এর কাঠিন্য বেশি হয় এবং এই শিলায় জীবাশ্ম দেখা যায় না।

    • 1
  2. শিলা হচ্ছে বিভিন্ন প্রকার খনিজের সমন্বয়ে সৃষ্ট ভুত্বক গঠনকা

    আগ্নেয়শিলা: অগ্নেয়গিরি থেকে অগ্নুৎপাতের সময় গরম তরল ম্যাগমা জ্বালামুখ থেকে বাইরে লাভা রুপে বাহিত হয় এই তরল বায়ুর সংস্পর্শ এসে ধীরে ধীরে ঠান্ডা হয়ে কঠিন আগ্নেয় শিলা তে পরিণত হয়। যেমন: ব্যাসল্ট।

    পাললিক শিলা : এই আগ্নেয়শিলা বর্হিজাত প্রক্রিয়া দ্বারা বৃষ্টিপাত, রৌদ্র, নদী, প্রভৃতি দ্বারা চূর্ণ বিচূর্ণ হয়ে সমুদ্র এর তলদেশ এ ধাপে ধাপে সঞ্চিত হয়ে চাপ ও তাপে পাললিক শিলা সৃষ্টি হয়।

    রূপান্তরিত শিলা: পাললিক ও আগ্নেয়শিলা বহু বছর ধরে চাপে, তাপে ও রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাধ্যমে রূপান্তরিত শিলায় পরিণত হয়। যেমন:স্লেট ।

    • 0
  3. শিলা তিন প্রকার ১ আগ্নেয় শিলা ২ পাললিক শিলা ৩ রুপান্তরিত শিলা

    • 0

You must login to add an answer.